মেদ কমান শপিং মলে শপিং করে

মেদ কমান
মেদ কমান শপিং মলে শপিং করে

রোজ রোজ একইরকম ব্যায়ামের টিপস নিতে নিতে আপনার কি ভীষণ একঘেয়ে লাগছে? তাহলে এবার একটু অন্যরকম কিছু বলি। সত্যি তো গতানুগতিক একইরকমের ব্যায়াম করতেও ভীষণ বিরক্তিকর লাগে। এবার নিজের শরীরের মেদ কমান মল ওয়াকিং করে৷ কিভাবে করবেন? জেনে নিন তাহলে।
এটা একেবারে নতুন ধরনের কনসেপ্ট। আধুনিক জীবনযাত্রার সঙ্গে শপিং মলের ব্যাপারটা ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। শপিং করতে হোক কিংবা বন্ধুদের সঙ্গে গেট টুগেদার বা সিনেমা দেখা, আমরা প্রায়শই মলে যাই। আর এই মলে গিয়ে যদি একটু ব্যায়াম করা যায় তাহলে তো কথাই নেই। শপিং মলে প্রত্যেকটা ফ্লোর অনেকটা জায়গা নিয়ে তৈরি হয়। আর সব মলই তিন চারতলার হয়ে থাকে। প্রত্যেকটা ফ্লোর যদি অন্তত একপাক করে হেঁটে নিতে পারেন তাহলেই দেখবেন, অনেকটা হাঁটা হয়ে গিয়েছে আপনার। আপনার যদি একা লাগে তাহলে কোনো বন্ধুদের নিয়ে যেতে পারেন বা নিজের সঙ্গীকেও নিয়ে যেতে পারেন। শুধু হাঁটার সময় ছোট ছোট কয়েকটা জিনিস মেনে চলতে হবে।
প্রথমেই জোরে হাঁটতে শুরু করবেন না। প্রথম পাঁচ মিনিট আস্তে আস্তে হাঁটুন। এতে ওয়ার্ম আপ হয়ে যাবে। তারপর ১৫ মিনিট আর একটু জোরে হাঁটুন। হাঁটার সময় হাত দুটিও সামনে পিছনে নাড়াচাড়া করুন। পরের ১০ মিনিট আরও একটু জোরে হাঁটুন। পরের ২০ মিনিট আস্তে আস্তে হাঁটুন। ওপরে যাওয়ার সময় সিঁড়ি ব্যবহার করুন। আর এই হেঁটে হেঁটে ঘুরেই শপিংটাও সেরে নিন। দেখবেন আপনার ব্যায়ামটাও হয়ে যাবে। আর একঘেয়েও লাগবে না। শরীরের মেদ কমান এইভাবে শপিং মলে শপিং করে।

আপনার যে কোন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্যের জানান দিতে আপনার ডক্টর রয়েছে আপনার পাশে।জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আপনার ডক্টর health সাইটে।মনে না থাকলে আপনি সাইট আপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখুন।ধন্যবাদ
সূত্র: কালের কণ্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *